পাবনার আটঘরিয়ায় প্রধান শিক্ষকের আপত্তিকর ঘটনায় তোলপাড়

পাবনা জেলা প্রতিনিধি: অনুসন্ধানবার্তা
পাবনার আটঘরিয়া উপজেলার রাঘবপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বাকী বিল্লাহ ওরফে টুকু মাস্টারের বিরুদ্ধে এক নারীর সাথে আপত্তিকর অবস্থায় ধরা পরার ঘটনা ফাঁস নিয়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।

ওই শিক্ষক বাকী বিল্লাহ ওরফে টুকু মাস্টার আটঘরিয়া উপজেলার মাজপাড়া ইউনিয়নের সড়াবাড়িয়া গ্রামের মৃত সিফাতুল্লাহ প্রামানিকের ছেলে।

স্থানীয়সূত্রে জানা যায়, গত মঙ্গলবার (১৬ আগষ্ট) পাবনা শহরের অস্থায়ী ভাড়া বাসায় যায় প্রধান শিক্ষক বাকি বিল্লাহ ওরফে টুকু মাস্টার। সেখানে জনৈক রূপা খাতুনের সঙ্গে অনৈতিক কাজে লিপ্ত হলে স্থানীয় লোকজন তাকে হাতে নাতে আটক করে। পরে টাকার বিনিময়ে সেখান থেকে ছাড়া পান প্রধান শিক্ষক বাকি বিল্লাহ।

এলাকাবাসী রইচ উদ্দিন রবি, রফিজ উদ্দিন, রিপন, কচি, আবু সাঈদ, নাসির উদ্দিন জানান, প্রধান শিক্ষক বাকী বিল্লাহ ওরফে টুকু মাস্টার গত মঙ্গলবার বিদ্যালয়ে হাজিরা দিয়ে ব্যাংকের কথা বলে পাবনায় অস্থায়ী ভাড়াটিয়া বাসায় যায়। সেখানে জনৈক রূপা খাতুনের সাথে অনৈতিক কাজে লিপ্ত হলে স্থানীয় লোকজন তাকে হাতে নাতে আটক করে পরে অর্থের বিনিময়ে তা ধামাচাপা দেয়।

তারা আরও জানান, সে প্রায়ই এরকম ঘটনা টাকার বিনিময়ে বেঁচে যায়। তবে এলাকাবাসী তার অনৈতিক কর্মকান্ডে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে।

তবে এবিষয়ে প্রধান শিক্ষক বাকী বিল্লাহ ঘটনার সত্যতা অস্বীকার করে জানান, ১৬ আগস্ট দুপুরে আমি পাবনা শহরে রিকসা যোগে যাচ্ছিলাম। অপরিচিত কয়েক জন যুবক আমার চলার পথ গতিরোধ করে অজ্ঞাত এক মহিলাকে আমার রিকসায় জোর পৃর্বক তুলে দিয়ে পাবনা সিঙ্গা বাজার একটি ছাত্রাবাসে নিয়ে আটক করে রাখে এবং আমার কাছে থেকে ৪২ হাজার টাকা কেড়ে নিয়ে ছেড়ে দেয়।